মেনু নির্বাচন করুন

চঁদপুর মহিলা আলিম মাদ্রাসা

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

চাঁদপুর মহিলা আলিম মদরাসাটি ১৯৮৭ ইং সনে হয়েছে। মাদরাসাটি উপজেলা কমপ্লেক্স থেকে ১ কি:মি: দুরত্বে জৌনপুরী পীর সাহেব কেবলার খানকা শরীফের পশ্চিম পার্শ্বে মাওলানা মোস্তাক আহমেদ সাহেবের বাড়ীর দরজায় অবস্থিত।

১৯৮৭

চাঁদপুর মহিলা আলিম মাদরাসাটি চাঁদপুর ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা জনাব আলহাজ্ব মোস্তাক আহমেদ সাহেবের উদ্যোগে ১৯৮৭ ইং সনে প্রতিষ্ঠিত হয়। মাদরাসাটিতে (১) জনাব আ: মন্নান পাটওয়ারী, (২) জনাব আলহাজ্ব আ: সহিদ হাওলাদার (৩) জনাব মো: জয়নাল আবেদীন সাহেবগণ ১.৩৩ শতাংশ জমি দান করেন। যার উপর প্রতিষ্ঠানটি ৮ম শ্রেণী অর্থাৎ জুনিয়র মাদরাসা হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে ১৯৯৫ সালে দালিখ নবম শ্রেণীর অনুমতি পায় এবং ১৯৯৬ সালে দাখিল স্বীকৃতি পেয়ে ১০০% কৃতকার্য হয়। কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় ভাল ফলাফলের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দুইবার ১,২৫,০০০/- টাকা, একবার ১,০০,০০০/- টাকা, একবার ৭৫,০০০/-  টাকা, একবার ২০,০০০/- টাকা উদ্দীপনা পুরস্কার প্রাপ্ত হয়। পরবর্তীতে মাদরাসাটি আলিম মাদরাসায় উন্নীত হয়।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

 

ক্রমিক নং

শ্রেণীর নাম

ছাত্র

ছাত্রী

পাসের হার

০১

প্রথম

-

৫৭

৫৭

০২

দ্বিতীয়

-

৩১

৩১

০৩

তৃতীয়

-

৩০

৩০

০৪

চতুর্থ

-

৩০

৩০

০৫

পঞ্চম

-

৩৮

৩৮

০৬

ছষ্ঠ

-

১১১

১১১

০৭

সপ্তম

-

৭৭

৭৭

০৮

অষ্টম

-

৬৯

৬৯

০৯

নবম

-

৫৫

৫৫

১০

দমশ

-

৬০

৬০

১১

একাদশ

-

৩১

৩১

১২

দ্বাদশ

-

৩২

৩২

মোট=

-

৬২১

৬২১

১০০%

ক্রমিক নং

সদস্যগণের নাম

পদবী

সদস্য পরিচয়

মোবাইল নম্বর

০১

জনাব আবুল কাশেম তালুকদার

সভাপতি

এমপির প্রতিনিধি

০১৭১১০১১৬৯০

০২

জনাব মাও: আবদুল আলীম

সদস্য সচিব

পদাধিকার বলে

০১৭২০৫৫৪১৫৬

০৩

জনাব মাও: মোস্তাক আহমেদ

সদস্য

প্রতিষ্ঠাতা সদস্য

০১৭১২৫৯৩৮৬৭

০৪

জনাব মো: জয়নাল আবেদীন

সদস্য

দাতা সদস্য

০১৭২৫৭২৮৪২৫

০৫

জনাব মো: আলাউদ্দিন

সদস্য

ছাত্রী অভিভাবক

০১৭৬২৮৫১২২৫

০৬

জনাব মো: আ: রহমান

সদস্য

ছাত্রী অভিভাবক

০১৭৩৪৭৮২৬৯১

০৭

জনাব মো: নূর ইসলাম

সদস্য

ছাত্রী অভিভাবক

০১৭৩২৮৭৫১৪৫

০৮

জনাব মো: ফারুক

সদস্য

ছাত্রী অভিভাবক

০১৭১৮১৮৬২৬৯

০৯

জনাব মো: মমিনুল ইসলাম

সদস্য

শিক্ষানুরাগি

 

১০

জনাব মো: সোহসিন

সদস্য

শিক্ষক প্রতিনিধি

০১৭১৬০৩৩৩৫১

১১

জনাব নুরুল আহাদ তসলিম

সদস্য

শিক্ষক প্রতিনিধি

০১৭১৭৭৩৯৮৪৯

১২

জনাবা অপরাজিতা দাস

সদস্য

মহিলা শিক্ষক প্রতিনিধি

০১৭৪৭৬৯৭১৬৬

 

ক্রমিক নং

পরীক্ষার নাম

পরীক্ষার সন

পরীক্ষার্থীর সংখ্যা

উত্তীর্ণের সংখ্যা

পাসের হার

০১

৫ম শ্রেণী

২০১০

৩৬

৩৬

১০০%

০২

৫ম শ্রেণী

২০১১

২৬

২৬

১০০%

০৩

৫ম শ্রেণী

২০১২

৩৯

৩৯

১০০%

০৪

৫ম শ্রেণী

২০১৩

৩৩

৩৩

১০০%

০৫

৫ম শ্রেণী

২০১৪

৩০

৩০

১০০%

 

ক্রমিক নং

শ্রেণী

পাসের সন

পরীক্ষার্থী

উত্তীর্ণ

পাসের হার (%)

০১

জেডিসি

২০১০

১০

০৮

৮০%

০২

জেডিসি

২০১১

২২

১৯

৮৭%

০৩

জেডিসি

২০১২

১৩

১৩

১০০%

০৪

জেডিসি

২০১৩

১৬

১৪

৮৮%

০৫

জেডিসি

২০১৪

১৬

১৬

১০০%

 

ক্রমিক নং

শ্রেণী

পাসের সন

পরীক্ষার্থী

উত্তীর্ণ

পাসের হার (%)

০১

দাখিল

২০১০

২৮

২২

৭৮%

০২

দাখিল

২০১১

২১

১৫

৭১%

০৩

দাখিল

২০১২

২৪

২১

৮৮%

০৪

দাখিল

২০১৩

২৭

২৫

৯৩%

০৫

দাখিল

২০১৪

২৮

২৮

১০০%

 

ক্রমিক নং

শ্রেণী

পাসের সন

পরীক্ষার্থী

উত্তীর্ণ

পাসের হার (%)

০১

আলিম

২০১০

৩৬

২৮

৭৮%

০২

আলিম

২০১১

৪৮

৪০

৮৩%

০৩

আলিম

২০১২

৫৫

৪৫

৮২%

০৪

আলিম

২০১৩

৬০

৫৯

৯৮%

০৫

আলিম

২০১৪

৫৬

৫৫

৯৮%

কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় ভাল ফলাফলের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দুইবার ১,২৫,০০০/- টাকা, একবার ১,০০,০০০/- টাকা, একবার ৭৫,০০০/-  টাকা, একবার ২০,০০০/- টাকা উদ্দীপনা পুরস্কার প্রাপ্ত হয়।

কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় ভাল ফলাফলের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দুইবার ১,২৫,০০০/- টাকা, একবার ১,০০,০০০/- টাকা, একবার ৭৫,০০০/-  টাকা, একবার ২০,০০০/- টাকা উদ্দীপনা পুরস্কার প্রাপ্ত হয়।

অত্র এলাকায় কোন মহিলা ফাজিল মাদরাসা নাই বিধায় মাদরাসাটি ভবিষ্যতে ফাজিল মাদরাসায় উন্নীত করণ প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

শশীগঞ্জ বাজারের উত্তর মাথায় চাঁদপুর ইউনিয়ন পরিষদের উত্তর পার্শ্ব দিয়ে পশ্চিম দিকের রাস্তা।

কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় ভাল ফলাফলের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দুইবার ১,২৫,০০০/- টাকা, একবার ১,০০,০০০/- টাকা, একবার ৭৫,০০০/-  টাকা, একবার ২০,০০০/- টাকা উদ্দীপনা পুরস্কার প্রাপ্ত হয়। প্রতি বছর মাদরাসা থেকে ৩-৪ জন ছাত্রী জিপিএ-৫ পেযে উর্ত্তীর্ণ হয়।



Share with :

Facebook Twitter